সোমবার, ১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

গাইবান্ধায় আ’লীগ নেতৃবৃন্দের সংবাদ সম্মেলন : দলের ভাবমূর্তি বিনষ্টের অভিযোগে পত্রিকায় অগ্নিসংযোগ

মো. নজরুল ইসলাম, গাইবান্ধা প্রতিনিধি
গাইবান্ধার বিভিন্ন উপজেলা ও পৌর আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন নিয়ে ঢাকা থেকে প্রকাশিত দৈনিক ভোরের পাতা পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করায় বিক্ষুব্ধ আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা পত্রিকাটিতে অগ্নিসংযোগ করেছে। রোববার বিকেলে জেলা শহরের কাচারী বাজার মোড়ে নেতাকর্মীরা সমবেত হয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এর আগে তারা গাইবান্ধা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিষয়টির প্রতিবাদ ও তীব্র নিন্দা জানান।
সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিকের নেতৃত্বে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মৃদুল মোস্তাফিজ ঝন্টু। এসময় জেলা, সাত উপজেলা ও এক পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে বক্তব্য দেন রেজাউল করিম রেজা, আব্দুল লতিফ প্রধান, মোকাদ্দেস আলী বাদু, আশরাফুল সরকার আলম লেবু, জিএম সেলিম পারভেজ, অ্যাড. সামসীল আরেফিন টিটু, নাসিরুল আলম স্বপন, অধ্যাপক সামিকুল ইসলাম লিপন, মো. তৌহিদুল ইসলাম, অধ্যাপক আব্দুল জলিল, শহিদুল্লাহিল কবির ফারুক, ওমর ফারুক রুবেল, কামাল হোসেন, পিয়ারুল ইসলাম, রণজিত বকসী সূর্য্য, সাইফুল আলম সাকা, তানজিমুল ইসলাম জামিল প্রমুখ।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়, ভোরের পাতা পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদে বিএনপি ও জামায়াত পন্থী অনুপ্রবেশকারীদের অর্থের বিনিময়ে দলে বিভিন্ন পদে পদায়ন করা হয়েছে, যা আদৌও সত্য নয়। গাইবান্ধার বর্তমান ৭টি উপজেলা ও পৌর কমিটিতে কোন অনুপ্রবেশকারী নেই বা আর্থিক লেনদেনের কোন সম্পৃকতা নেই। যে কোন সময়ের চেয়ে আওয়ামী লীগ জেলা ও উপজেলা সুসংগঠিত। আগামী দিনে বিরোধী দলের যে কোন চ্যালেঞ্জ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসনার নেতৃত্বে মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত রয়েছে। আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাখাওয়াত হোসেন শফিকের জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি কুচক্রি মহল ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়ে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় সংবাদ পরিবেশ করে আওয়ামীলীগের ভাবমুর্তি নষ্ট করার পায়তারায় লিপ্ত রয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে আরও উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ গাইবান্ধা জেলা শাখা ৭টি উপজেলা, ৩টি পৌরসভার কমিটির কার্যক্রম গতিশীল যে কোন সময়ের চেয়ে আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে গাইবান্ধার ৫টি আসনেই নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ের লক্ষ্যে জেলা আওয়ামীলীগ ও ৭টি উপজেলা কমিটি কাজ করে যাচ্ছে। সংবাদ সম্মেলন থেকে ভোরের পাতা পত্রিকার ওই প্রতিবেদকের অপসারণ দাবি করা হয়। তা না হলে গাইবান্ধায় ভোরের পাতা পত্রিকা অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হবে বলে নেতৃবৃন্দ উল্লেখ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষঃ