মঙ্গলবার, ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ঘোড়াঘাটে পৃথকস্থান থেকে নারীসহ দুই মরদেহ উদ্ধার

ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ
দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে রাদেব কিস্কু (২৬) এক আদিবাসী যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি পৌর এলাকার বাউপুকুর গ্রামের জজ কিস্কুর ছেলে।
বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) সকালে ঘোড়াঘাট পৌর এলাকার ফ্রনগাছী গ্রামের বিনুছ মূর্মূর বাড়ির পাশে একটি কবরস্থান সংলগ্ন মেহগনী গাছের ডালে ঝুলন্ত অবস্থায় লাশটি দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
পরিবার সূত্রে জানা যায়, নিহত রাদেবের বাবা জজ কিস্কুর নিজস্ব বাড়ি রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার চতরা গ্রামে। সে তার প্রথম স্ত্রী বুলবুলিকে তালাক দিয়ে ঘোড়াঘাটে পৌর এলাকার বাউপুকুর গ্রামের রানী সরেন নামে এক নারীকে দ্বিতীয় বিয়ে করে বসবাস করতো। নিহত রাদেব তার প্রথম স্ত্রীর সন্তান হওয়ার সুবাদে মাঝে মাঝেই বাবার সাথে দেখা করতে পীরগঞ্জ থেকে ঘোড়াঘাটে আসতো বলে জানা গেছে। তবে পরিবারের দাবি সে মানসিক রোগী ছিল।
অপরদিকে, একইদিনে দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে পারিবারিক কলহের জেরে উপজেলার ০৪ নং ঘোড়াঘাট ইউনিয়নের তোষাই জোরগাড়ি গ্রামের মোঃ রনি মিয়ার স্ত্রী রুমানা আক্তার (১৮), নিজ ঘরের কাঠের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্নহত্যা করেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রেমঘটিত কারণে আজ সকালে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়েছিল।
ঘোড়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু হাসান কবির জানান, নিহত রাদেব কিস্কুর লাশটি ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং নিহত রুমানার লাশটি থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। আগামীকাল সকালে ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর মর্গে প্রেরণ করা হবে। রিপোর্ট আসলে বোঝা যাবে এটি পরিকল্পিত হত্যা নাকি আত্মহত্যা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষঃ