শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

জনগণের জন্য আজীবন কাজ করতে চান মেম্বার মাহবুব

মোয়াজ্জেম হোসেন রাসেল
কালীগঞ্জ উপজেলার তুমলিয়া ইউপি নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়ে এক বছরেই ব্যাপক জনপ্রিয়তার শীর্ষে মেম্বার মাহবুব। মাতৃত্বকালীন ভাতা, বয়স্ক ভাতা, প্রতিবন্ধি ভাতা, টিউবওয়েলসহ সরকারী বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করছেন। এছাড়াও ব্যক্তিগত অনুদানের মাধ্যমে ঘর, ঢেউ টিন, স্বাস্থ্য সম্মত টয়লেট নির্মাণ, কন্যা দায়গ্রস্থ পিতা, অসুস্থ্য রোগীদের চিকিৎসা, মেধাবী গরীব ছাত্র-ছাত্রীদের লেখাপড়ার খরচ যুগিয়ে যাচ্ছেন। স্কুল কলেজ পড়–য়াদের খেলাধুলার প্রতি আগ্রহী করে তুলতে খেলার সরঞ্জামাদী প্রদান, বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসায় আর্থিক অনুদান, এলাকার রাস্তা ঘাট মেরামতসহ আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখছেন। নিজ ওয়ার্ডের বাহিরেও বিভিন্ন মানবিক, সামাজিক ও ধর্মীয় কার্যকলাপের মাধ্যমে জনগণের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন তিনি। সমাজ থেকে মাদক, যৌতুক ও বাল্যবিবাহ মুক্ত করতে তিনি স্থানীয় যুবকদের সাথে নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন।
মাহবুব মেম্বার ৯নং ওয়ার্ডের বর্তুল গ্রামের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মোঃ নুরুল ইসলাম ও মাতা মোসাঃ জরিনা বেগম দম্পত্তির ৫ সন্তানের মধ্যে মাহবুব জেষ্ঠ্য।
তুমলিয়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের একাধিক বাসিন্দা জানান, মাহবুব মেম্বার বিজয়ী হয়ে এলাকায় বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছেন। তার কাছে সাহায্যের জন্য গিয়ে কেউ খালি হাতে ফিরে আসেনি। করোনাকালীন মহাদূর্যোগের সময়ে দিন মুজুর, রিক্সাওয়ালা, দুঃস্থ, অসহায় ও স্বল্প আয়ের মানুষ যখন কাজের অভাবে মানবেতর জীবন যাপন করছিল তখন তাদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন মেম্বার মাহবুব। ওই সময় তিনি প্রায় ১০ লাখ টাকা ব্যক্তিগত সাহায্য প্রদান করেন। নিজ ওয়ার্ড ছাড়াও তিনি ইউনিয়নব্যাপী বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করেছেন। তারা আরো বলেন, তিনি একজন নির্বিক, মানবিক, নিরহংকারী ও সদালাপী ব্যক্তি।
মাহবুব মেম্বার জানান, জনগণের জন্য কিছু করতে পারলে আমি নিজেকে ধন্য মনে করি। পরিষদের অর্থ ছাড়াও আমার ব্যক্তিগত অর্থ দিয়ে এলাকার উন্নয়ন করা ও জনগণের পাশে দাঁড়ানোই আমার একমাত্র লক্ষ্য। আমি আজীবন জনগণের সেবক হয়ে সেবা করে যেতে চাই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষঃ