বৃহস্পতিবার, ৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নারী শিক্ষায় অগ্রগামী কালাই সরকারি মহিলা কলেজ


কালাই (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি


জয়পুরহাট জেলায় নারী শিক্ষায় অগ্রগামী ও অনবদ্য স্বাক্ষর রেখে চলেছে সদ্য সরকারি হওয়া কালাই মহিলা সরকারি কলেজ। ১৯৯৫ সালে ৫একর জমির উপর স্থাপিত এ কলেজটি এখন বলা চলে শিক্ষাসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে একটি অলোকবর্তিকা। অধ্যক্ষ নাজিম উদ্দিনের অক্লান্ত শ্রম ও শিক্ষক কর্মচারীদের নিরসল প্রচেষ্টায় উপজেলা পর্যায়ে কলেজটি ধীরে ধীরে আলো ছড়িয়ে প্রথম সারির শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রূপ নিতে চলেছে।


বর্তমানে কলেজটিতে উচ্চ মাধ্যমিক, ডিগ্রি কোর্স ছাড়াও দুটি বিষয়ে স্নাতক(সম্মান) শ্রেণিতে প্রায় ১ হাজার ৮শ ছাত্রী রয়েছে। রয়েছে মান সম্মত বিজ্ঞানাগার ও লাইব্রেরি । কলেজের ৩য় তলায় ছাত্রীদের জন্য রয়েছে ১০০ সিটের মনোরম পরিবেশের ছাত্রী নিবাস। যেখানে কালাই উপজেলাসহ পাশের উপজেলার ছাত্রীরা অবস্থান করে। কলেজেটিতে রয়েছে বিভাগের শিক্ষকদের জন্য আলাদা আলাদা শিক্ষক রুম। শিক্ষার্থী ও শিক্ষকগণকে কম্পিউটারে অধিকতর দক্ষ করার জন্য রয়েছে সু-সজ্জিত শেখ রাসেল ডিজিট্যাল কম্পিউটার ল্যাব। শিক্ষকদের সুবিধার জন্য প্রতিটি কক্ষে রয়েছে সাউন্ড সিস্টেম ও ওয়াই ফাই কানেকশন এবং বিদ্যূতের বিকল্প হিসাবে প্রতিটি কক্ষে রয়েছে সোলার প্যানেল।

জানা গেছে, কলেজটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে অধ্যবদি যে সকল ছাত্রী পাশ করে বের হয়েছেন তারা বিভিন্ন বিশ্ব বিদ্যালয়সহ সরকারি বিভিন্ন অফিসে উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছেন। কলেজে শিক্ষক, কর্মচারী ও ছাত্রীদের জন্য রয়েছে কঠোর শৃঙ্খলা। কলেজ চলাকালীন সময়ে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কোনো শিক্ষক বা ছাত্রীর ক্যাম্পাস ত্যাগে রয়েছে বাধ্যবাধকতা। ২০২১ সালে মাধ্যমিক পরীক্ষায় ৪০৩ জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯৮জন ছাত্রী।


শিক্ষা কার্যক্রম ছাড়াও রোভার স্কাউট, ফুটবল ও সাংস্কৃতিক বিষয়ে পারদর্শিতা রয়েছে শিক্ষার্থীদের। প্রায় প্রতিটি জাতীয় রোভার মুডে এ কলেজের রোভাররা অংশগ্রহণ করে ইতোমধ্যে সুনাম বয়ে এনেছেন। পাশাপাশি ফুটবল ও সংস্কৃতিতেও অনন্য সাফল্য অর্জন করেছে।


সম্প্রতি জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ-২২ এ প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীরা উপজেলা পর্যায়ে ১০টি, জেলা পর্যায়ে ৩টি, বিভাগীয় পর্যায়ে ১টি ও জাতীয় পর্যায়ে ১টি ইভেন্টে পুরুস্কার প্রাপ্ত হয়েছে। অধ্যক্ষ নাজিম উদ্দিনের নিরলস প্রচেষ্ঠার স্বীকৃতি স্বরপ তিনি জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে-২২ জেলার শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ হিসাবে মনোনীত হয়েছেন।

এছাড়াও অত্র প্রতিষ্ঠানের জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শ্রেণি শিক্ষক আব্দুল মান্নানকে নির্বাচিত করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠান প্রধান কলেজের এ সাফল্যের জন্য জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ ও জয়পুরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনসহ জেলা উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় অভিভাবক ও সচেতন মহলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষঃ