সোমবার, ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নিখোঁজের দু’দিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার ঃ আটক ১

মো. নজরুল ইসলাম, গাইবান্ধা প্রতিনিধি:


নিখোঁজের দু’দিন পর গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মহিমাগঞ্জ ইউনিয়নের চাঁদভবনা গ্রামে বৃহস্পতিবার সকালে একটি খালের পানিতে ভাসমান অবস্থায় মোখলেছ মিয়া (৪০) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত মোখলেছ মিয়া মহিমাগঞ্জ ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের খোকা মিয়ার ছেলে। মোখলেছ মিয়া দীর্ঘদিন ভ্যান চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিল। এ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে পুলিশ একই গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে মশিউর রহমান (৩০) কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।
নিহতের স্ত্রী বালিতন বেগম জানান, গত মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে মোখলেছের কয়েকজন বন্ধু তাকে ডেকে নিয়ে যায়। সারারাত তিনি বাড়িতে ফিরে না আসায় পরদিন তারা বিভিন্ন স্থানে খোজাখুঁজি করতে থাকে। পরদিন গত বুধবার বিকেলে পার্শবতী চাঁদভবনা ব্রীজ সংলগ্ন খালের পাশে মোখলেছের স্যান্ডেল পড়ে থাকতে দেখে গ্রামবাসীরা। স্থানীয়রা খালের পানিতে খোজাখুঁজি করে মোখলেছের পড়ণের গেঞ্জি ও লুঙ্গী খুঁজে পায়। বৃহ¯পতিবার সকালে ওই খালের পানিতে মোখলেছের লাশ ভেসে ওঠলে গ্রামবাসীরা গোবিন্দগঞ্জ থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা জেলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।
বিদ্যুতের লোডশেডিং বন্ধের দাবিতে গাইবান্ধায় বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ
মো.নজরুল ইসলাম,গাইবান্ধা প্রতিনিধি:
জ্বালানি তেল ও ইউরিয়া সারের মুল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ ও বিদ্যুতের লোডশেডিং বন্ধের দাবিতে বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলন গাইবান্ধা জেলা উদ্যোগে বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভ মিছিলটি দলীয় কার্যালয় থেকে বের হয়ে শহর প্রদক্ষিণ শেষে ২নং ট্রাফিক মোড়ে এসে এক সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য দেন সংগঠনের জেলা সদস্য সচিব মনজুর আলম মিঠু, সুন্দরগঞ্জ উপজেলা সমন্বয়ক বীরেন চন্দ্র শীল, আশরাফুল আলম আকাশ, জাহিদুল হক, নারীমুক্তি কেন্দ্রের জেলা সংগঠক পারুল বেগম, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের জেলা আহবায়ক শামিম আরা মিনা প্রমুখ।
বক্তারা অবিলম্বে জ্বালানি তেলসহ ইউরিয়া সারের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবি জানান। তাঁরা বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে যখন দাম কমছে তখন দেশে জ্বালানি তেলের মুল্যবৃদ্ধি অযৌক্তিক। আন্তর্জাতিক বাজারে যখন দাম আরো কম ছিল তখন আমাদের দেশে তেলের দাম না কমিয়ে সরকার জনগণের পকেট থেকে ৪৩ হাজার কোটি টাকা লুট করে নিয়েছে। বর্তমান আন্তর্জাতিক বাজার দর অনুযায়ী ডিজেলের মুল্য কোনভাবেই ৬৮ টাকার বেশি হয়না, সেখানে সরকার দাম বাড়িয়ে ১১৪ টাকা করেছে। দেশ থেকে প্রতিবছর হাজার হাজার কোটি টাকা পাঁচার হচ্ছে, সরকার সেই পাঁচারকারীদের ধরছেনা এবং পাঁচার বন্ধ করতে পারছেনা। অথচ আইএমএফ’র কাছ থেকে সামান্য কিছু ঋণ নিতে তাদের শর্তানুযায়ী জ্বালানি তেলের মুল্যবৃদ্ধি করছে। বক্তারা শোষক লুটপাটকারী এবং অর্থ পাঁচারকারীদের পাহাড়াদার বর্তমান সরকারের সকল গণবিরোধী সিদ্ধান্ত ও দমন-পীড়ন, পুলিশী নির্যাতন রুখে দাঁড়ানোর জন্য দেশবাসীর প্রতি আহবান জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষঃ