শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

প্রথম বলেই ব্রেক থ্রু দিলেন নাসুম, এরপর মাহদির ঘূর্ণি

ক্রীড়া ডেস্ক

প্রথম ম্যাচে খুব একটা ভালো বোলিং করতে পারেননি। দ্বিতীয় ম্যাচে এ কারণে বসিয়ে রাখা হয়েছিল নাসুম আহমেদকে। তবে, তৃতীয় ম্যাচে আবারও তাকে ফিরিয়ে আনা হলো। পেসার শরিফুল ইসলামের জায়গায় একজন বাড়তি স্পিনার হিসেবে নাসুম আহমেদকেই দলে নেয়া হলো শেষ ম্যাচে।তৃতীয় ম্যাচে নাসুমের ওপর যে আস্থা রাখা হয়েছিল, তার প্রতিদান নিজের প্রথম বলেই দিয়ে দিলেন বাংলাদেশের এই স্পিনার। বোলিং করতে এসেই উইকেট নিলেন তিনি।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বাংলাদেশের বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে খেলতে শুরু করেন জিম্বাবুয়ের দুই ওপেনার। রেগিস চাকাভা এবং ক্রেইগ আরভিন মিলে ৩ ওভারেই তুলে ফেলেন প্রায় ৩০ রান।এরপরই নাসুমের হাতে বল তুলে দেন অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন এবং বল করতে এসেই প্রথম বলে উইকেট নিলেন তিনি। ওপেনার রেগিস চাকাভাকে কভার অঞ্চলে আফিফ হোসেনের হাতে ক্যাচ দিতে বাধ্য করেন নাসুম। ১০ বলে ১৭ রান করে আউট হন চাকাভা। ২টি বাউন্ডারির সঙ্গে ১টি ছক্কার মারও মারেন তিনি।

ক্রেইগ আরভিন আর ওয়েসলি মাধভিরের জুটিটাও বড় হতে পারলো না আরেক স্পিনার মাহদি হাসানের ঘূর্ণি বোলিংয়ের কারণে। ১৬ রানের জুটি গড়ার পর শেখ মাহদি হাসানের বলে বোল্ড হয়ে যান ওয়েসলি মাধভিরে।পরের বলেই আরও একটি উইকেট নেন মাহদি। এবার তিনি ফেরত পাঠালেন আগের দুই ম্যাচে বাংলাদেশের বোলারদের ভোগানো ব্যাটার সিকান্দার রাজাকে। শর্ট ফাইন লেগে মোস্তাফিজের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন রাজা।

এ রিপোর্ট লেখার সময় জিম্বাবুয়ের রান ৬ ওভার শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ৪৫ রান। ১৮ রান নিয়ে আরভিন ব্যাট করছেন। তার সঙ্গী হিসেবে শূন্য রানে মাঠে রয়েছেন শন উইলিয়ামস।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষঃ