রবিবার, ১৪ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘বঙ্গবন্ধুর খুনি ও তাদের দোসররা এখনও দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে’

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক বলেছেন, “মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নস্যাৎ করতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করা হয়। বঙ্গবন্ধুর খুনি ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচারে জাতি কলঙ্ক মুক্ত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর খুনি ও তাদের দোসররা এখনও দেশ বিরোধী নানা ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে।

“জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার (২ আগষ্ট) নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ সদর ইউনিয়নের ৯ টি স্থানে আলাদাভাবে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে দেশকে পিছিয়ে দেয়া হয়েছে উল্লেখ করে গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক বলেন, “পঁচাত্তরে ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকান্ডের মাধ্যমে দেশকে পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার সঙ্গে তার সোনার বাংলার স্বপ্নকেও খুন করা হয়েছিল। বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ আরো এগিয়ে যেত। তিনি জীবিত থাকলে বাংলাদেশ তার আরাধ্য সোনার বাংলা অর্জনের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে যেত।

“অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান ভুঁইয়া, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সালাউদ্দিন ভুঁইয়া, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ আনছার আলী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক আব্দুল আজিজ, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হারেজ, গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুল হাসান তুহিন, যুৃবলীগ নেতা সাখাওয়াত হোসেন রাজিব, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুম চৌধুরী অপু, উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি ফেরদৌসী আক্তার রিয়া, সাধারণ সম্পাদক সেলিনা আক্তার রিতা, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন মহিলা লীগের সভাপতি লাকি আক্তার প্রমুখ।

এসব অনুষ্ঠানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তাঁর পরিবারের শহীদদের রুহের মাগফিরাত কামনা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষঃ