বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বরগুনায় দুই ইউপিতে নৌকা ও আনারস মার্কা বিজয়ী

বরগুনা সংবাদদাতা:
বরগুনায় স্থগিত হওয়া দুই ইউনিয়ন পরিষদে ভোট গ্রহণ শেষে আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কা প্রতীক ও স্বতন্ত্র আনারস মার্কা প্রতীক বিজয়ী হয়েছেন । বুধবার (২৯ জুন) সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল পাঁচটায় ভোট গ্রহন শেষ হয়। এতে বেতাগী উপজেলার কাজিরাবাদ ইউনিয়নের নৌকা মার্কার প্রার্থী,সালাউদ্দিন মাহমুদ সুমন নির্বাচিত হয়েছেন। এবং তালতলী উপজেলার সোনাকাটা ইউনিয়নে আনারস মার্কার প্রার্থী ইউনুস ফরাজী নির্বাচিত হয়েছেন।
এর আগে গত ১৫ জুন বরগুনার বেতাগী উপজেলার কাজিরাবাদ ইউনিয়নের উপ-নির্বাচন ও তালতলী উপজেলার সোনাকাটা ইউনিয়নের ভোটগ্রহণের কথা থাকলেও তা স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন।
বেতাগীর কাজিরাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন চলতি বছরের শুরুর দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এরপর এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনের জন্য তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী গত ১৫ জুন এই ইউপিতে উপ-নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল।

অপরদিকে পঞ্চম ধাপে তালতলীর সোনাকাটা ইউনিয়নের নির্বাচনও অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল চলতি মাসের ১৫ তারিখ। তবে নির্বাচন ঘিরে এলাকায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি ও নির্বাচনী পরিবেশ ক্ষুণ্ন হওয়ায় উভয় ইউপির নির্বাচন স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন। এরপর গত সোমবার (২০ জুন) নির্বাচন কমিশনের উপসচিব আতিয়ার রহমান স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে ২৯ জুন স্থগিত হওয়া এই দুই ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগকে নির্দেশ দেওয়া হয়।
বেতাগী উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী সহিদুল ইসলাম বলেন, কাজিরাবাদ ইউনিয়নে ব্যালটের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ চলছে। এখানে চেয়ারম্যান পদে দুজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সহিংসতা এড়াতে কঠোর অবস্থানে ছিলেন প্রশাসন।
তালতলীর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাকিব তানভীর বলেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সোনাকাটা ইউনিয়নে দফায় দফায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়েছিল। এতে এলাকায় নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট হচ্ছিল। তাই কমিশন এ ইউনিয়নের নির্বাচন স্থগিত করে। পরে কমিশনের পরবর্তী ঘোষণা অনুযায়ী আজ এই ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত করার লক্ষ্যে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা দিলীপ কুমার হাওলাদার বলেন , নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার লক্ষে প্রতিটি কেন্দ্রে পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, ম্যাজিস্ট্রেট, স্টকিং ফোর্স, র্যাব, পুলিশ, আনসার মোতায়েন করা হয়েছে। কোন ঘটনা ছাড়াই সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বরগুনা পুলিশ সুপার মুহম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিক বলেন নির্বাচন স্বচ্ছ করার লক্ষ্যে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যাপক তৎপরতা ছিলো। জেলা পুলিশের আরও বাড়তি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করেছি প্রতিটি কেন্দ্রে। কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে দেয়া হবে না এ লক্ষ্যে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সজাগ দৃষ্টিতে ছিলেন।

প্রসঙ্গত, বেতাগীর কাজিরাবাদ ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৩ হাজার ১৬৮ জন। তাদের মধ্যে পুরুষ ৬ হাজার ৬০১ জন এবং নারী ৬ হাজার ৫৬৭ জন। এ ইউনিয়নের ভোটাররা ব্যালটের মাধ্যমে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। অন্যদিকে তালতলীর সোনাকাটা ইউনিয়নে মোট ৯ হাজার ২৩৬ জন ভোটার রয়েছেন। এদের মধ্যে ৪ হাজার ৬২০ জন পুরুষ এবং ৪ হাজার ৬১৬ জন নারী ভোটার রয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষঃ