সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মন্দির ও প্রতিমা ভাংচুর অভিযুক্ত কে এলাকাবাসী আটক করে পুলিশে হস্তান্তর

মো. নজরুল ইসলাম, গাইবান্ধা প্রতিনিধি
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার তালুককানুপুর ইউনিয়নের দামোদরপুরের হিন্দুপাড়া গ্রামে গত সোমবার রাতে ৪টি পারিবারিক পূজা মন্দির ও প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এসময় স্থানীয়রা আরিফুল ইসলাম (২৫) নামে এক যুবককে আটক করে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিলে পুলিশ এসে তাকে গ্রেফতার করে গোবিন্দগঞ্জ থানায় নিয়ে যায়। আরিফুল ইসলাম ওই ইউনিয়নের কাপাশিয়া গ্রামের হায়দার আলীর ছেলে।
স্থানীয়রা জানান, সোমবার রাতে আরিফুল মোটরসাইকেল করে এসে কারো কিছু বুঝে ওঠার আগেই একটি ধারালো ছুড়ি ও লাঠি দিয়ে দামোদরপুর হিন্দুপাড়া গ্রামের বিভিন্ন বাড়ীতে অবস্থিত পারিবারিক ২টি লক্ষ্মী মন্দির, ১টি কালীমন্দির, ১টি শিবমন্দির ও মন্দিরের ভিতরে থাকা প্রতিমা ভাংচুর করতে থাকে। এ সময় স্থানীয়রা তাকে আটক করে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেন। গোবিন্দগঞ্জ থানার একদল পুলিশ রাতেই এলাকাবাসীর সহযোগিতায় অভিযুক্ত আরিফুলকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।
গতকাল মঙ্গলবার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ প্রধান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফ হোসেন, থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইজার উদ্দীন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফ হোসেন জানান, ক্ষতিগ্রস্থ মন্দির ৪টি মেরামত করার জন্য মন্দির কর্তৃপক্ষকে ১০ হাজার করে টাকা প্রদান করা হয়েছে।
গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ইজার উদ্দিন মন্দির ও প্রতিমা ভাঙচুরের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ব্যাপারে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মুল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এতে আর কারও সম্পৃক্ততা আছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষঃ