সোমবার, ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রবির ক্রেতা নেই, গ্রামীণফোনের শেয়ার ঊর্ধ্বমুখী

নিজস্ব প্রতিবেদক

টানা চার কার্যদিবস দাম বাড়ার সর্বোচ্চ সীমা স্পর্শ করার পর বুধবার ক্রেতা সংকটে পড়েছে রবির শেয়ার। দিনের সর্বনিম্ন দামে কোম্পানিটির লাখ লাখ শেয়ার বিক্রির আদেশ আসলেও ক্রয় আদেশের ঘর শূন্য পড়ে রয়েছে। অন্যদিকে ক্রেতা সংকট কাটিয়ে ঊর্ধ্বমুখী ধারায় ফিরেছে গ্রামীণফোনের শেয়ার দাম।গ্রামীণফোনের সিম বিক্রিতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার পর দেশের শেয়ারবাজারে কোম্পানিটির শেয়ারের ক্রেতা সংকট দেখা দেয়। এতে বড় ধরনের দরপতনের মধ্যে পড়ে শেয়ারবাজারের সব থেকে বড় মূলধনের কোম্পানিটি।

ভয়েস কল ও ইন্টারনেট সংযোগে গ্রাহকদের ‘মানসম্মত সেবা দিতে না পারার’ কারণ দেখিয়ে গত বুধবার (২৯ জুন) গ্রামীণফোনের নতুন সিম বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয় বিটিআরসি। এরপর বৃহস্পতিবার থেকে সোমবার পর্যন্ত দিনের সর্বনিম্ন দামে লেনদেন হয় কোম্পানিটির শেয়ার। লেনদেন শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত দিনের সর্বনিম্ন দামে কোম্পানিটির বিপুল পরিমাণ শেয়ার বিক্রির আদেশ আসতে থাকে। অন্যদিকে শূন্য হয়ে যায় ক্রয় আদেশের ঘর।টানা তিন কার্যদিবস ক্রয় আদেশের ঘর শূন্য থাকার পর মঙ্গলবার লেনদেনের শুরুতেও ক্রয় আদেশের ঘর শূন্য হয়ে পড়ে। তবে লেনদেনের শেষদিকে এসে কোম্পানিটির শেয়ারের ক্রেতা ফেরে, সেই সঙ্গে বাড়ে শেয়ার দাম।

বিটিআরসির নিষেধাজ্ঞার পর গ্রামীণফোনের শেয়ারের ক্রেতা সংকট দেখা দিলেও হু হু করে বাড়তে থাকে আর এক মোবাইল ফোন অপারেটর রবির শেয়ার দাম। রোববার ও সোমবার টানা দুই কার্যদিবস দিনের সর্বোচ্চ দামে লেনদেন হয় কোম্পানিটির শেয়ার। মঙ্গলবার লেনদেনের শুরুতেও দিনের সর্বোচ্চ দামের কাছাকাছি চলে যায়। তবে শেষ পর্যন্ত দিনের লেনদেন শেষে সামান্য দাম বাড়ে।এ পরিস্থিতিতে বুধবার শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হতেই রবির বিপুল পরিমাণ শেয়ার দিনের সর্বনিম্ন দামে বিক্রির আদেশ আসে। লেনদেনের সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে এর মাত্রা। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ২৯ লাখ ২৬ হাজার ৭৬৫টি শেয়ার দিনের সর্বনিম্ন দাম ৩৬ টাকা ৪০ করে বিক্রির আদেশ রয়েছে। অন্যদিকে শূন্য পড়ে আছে ক্রয় আদেশের ঘর।

নিষেধাজ্ঞার পর ক্রেতা সংকটে পড়া গ্রামীণফোনের শেয়ার দাম এখন বাড়তে দেখা যাচ্ছে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত গ্রামীণফোনের প্রতিটি শেয়ার দাম ২ টাকা ৯০ পয়সা বেড়ে ২৯৪ টাকায় উঠেছে। টানা ক্রেতা সংকটে পড়ে মঙ্গলবার লেনদেনের শুরুতে কোম্পানিটির শেয়ার দাম ২৭৭ টাকায় নেমে গিয়েছিলো। তবে শেষদিকে ক্রেতা ফেরায় শেয়ারের দাম বেড়ে ২৯১ টাকা ১০ পয়সায় দাঁড়ায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষঃ