সোমবার, ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সরকারি ঘর দেওয়ার নামে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে দিনমজুরের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধি:


সরকারি ঘর দেওয়ায় কথা বলে দিনমজুরের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। ঘর এবং টাকা না পেয়ে অসহায় দিনমজুর প্রতিকার চেয়ে সোমবার (৮ আগস্ট) ইউএনও বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বিগত ৪ বছর পূর্বে ১৫ দিনের মধ্যে সরকারি ঘর বরাদ্দ দিবে বলে জেলার পাঁচবিবি উপজেলার আয়মারসুলপুরের ছোট মানিক এলাকার দিনমজুর মাসুদ রানার কাছ থেকে ৬০ হাজার টাকা দাবি করেন ওই ৪নং ওয়ার্ডের ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ও ২নং প্যানেল চেয়ারম্যান জাকির হোসেন ওরফে জাকের মেম্বার। পরে ওই দিনমজুর সরল বিশ্বাসে ইউপি সদস্য কে নগদ ৫০ হাজার টাকা দেন এবং অবশিষ্ট ১০ হাজার টাকা ঘর নির্মাণের সময়ে চান জাকির মেম্বার।

দিনমজুর মাসুদ রানা বলেন, আমি মেসি গাড়িতে শ্রমিক হিসাবে কাজ করে অতিকষ্টে পরিবারের সাতজন সদস্যের খরচ বহন করি। আমার থাকার মতো নিজস্ব কোন জায়গা নেই। একটি সরকারি ঘর পাওয়ার আশায় স্থানীয় ইউপি সদস্য জাকির হোসেনকে ৫০ হাজার টাকা দিয়েছি। এখন ওই টাকা ফেরৎ দেওয়ার কথা বললে ইউপি সদস্য এড়িয়ে যায় এবং টাকা ফেরৎ দিবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয়। আমি নিরুপায় হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে একটি লিখিত অভিযোগ করেছি।

এ ব্যাপারে আয়মারসুলপুর পরিষদের ইউপি সদস্য ও ২নং প্যানেল চেয়ারম্যান জাকির হোসেনের সাথে মোবাইলে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

আয়মারসুলপুর ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ মিলটনের নিকট এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার নিকটও একটি অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্ত ইউপি সদস্য জাকির হোসেনকে মৌখিক ভাবে বার বার বলা সত্তেও কোন লাভ হয়নি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরমান হোসেন বলেন, মাসুদ রানা নামে একজনের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এ ব্যাপারে একজন কর্মকর্তাকে তদন্তের জন্য দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। অভিযোগের বিষটির সত্যতা পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষঃ